Subscribe Us

দেখুন কিভাবে অতসী ঘটক ম্যাডাম আমার বাড়ির চারপাশে সব কাকুদের যাদের যাদের মেয়ে আছে তাদেরকে বিশ্বাস করিয়ে ফেলেছেন যে কৌশিক পাল সবাইকে নাচাচ্ছে আর পাড়ার ওই কাকুরা আমার উপর রোষ দেখাচ্ছেন আমার তো সবসময় ভয় হয় মায়ের অবর্তমানে উনারা আমার উপর চড়াও হয়ে আমাকে পিটিয়ে না মেরে দেন

 






সবার সামনে উনি আমাকে হঠাৎ বললেন যে 
তুমি কোথা থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং পাস্ করেছো যে 
নিজেকে একেবারে ইঞ্জিনিয়ার বলছো 
আবার সেটা গাড়ির সামনে লিখে নিয়েও ঘুরছো ?
শ্যামল ঘটকজী একথা কথা মাথায় রাখবেন  যে 
ইঞ্জিনিয়ার হতে গেলে 
অথবা 
ইঞ্জিনিয়ার কথাটা গাড়ির সামনে লাগিয়ে ঘোরবার জন্য 
পাড়ার কাকুকে দেখিয়ে শিবপুর  ইউনিভার্সিটি থেকে B.Tech এ  অউটস্টান্ডিং নিয়ে পাস করাবার মতোই অন্যান্য কলেজের থেকেও মানুষ পাস্ করে থাকতে পারে 
কারণ 
শিবপুর অনেক দূর হতে পারে, 
নারুলা কলেজ কাছে
আমার বাড়ির থেকে কাছে 
আমি সেখানে থেকে B.Tech পাস করেছি 
অনেকেরই দূরের কলেজ অপছন্দ
এতে আপনার অসুবিধার তো কিছু নেই 
 
আবার সেমিস্টার পরীক্ষার সময় B.Tech কলেজগুলিতে সিট্ পরে নিজের কলেজেই 
তাই পরীক্ষার সময়টাতে 
একমাসের জন্য কলেজের পাশে মেস ভাড়া করেন অনেক ইঞ্জিনিয়ার ছাত্রই 
বাড়ির কাছের কলেজ এ পড়বো বলে আমি ডিপ্লোমার সময় থেকে  ঠিক করে রেখেছি 
আর আপনি এসেছেন জানতে যে ভালো কলেজ কিনা আমাদের কলেজটা ?
আমাদের কলেজ টা কিন্তু National Board of Accreditation দ্বারা অনুমোদিত
আপনি এই কথাটার মানে জানেন তো ?
একটু ইন্টারনেট এ সার্চ করে দেখবেন Please
এছাড়া  
গাড়িতে ইঞ্জিনিয়ার লাগিয়েছি কোম্পানি লাগাতে বলেছে বলে 
এতেও আপনার অসুবিধার কারণ হওয়ার কথা নয় 

কিন্তু আপনি কি জানেন 
আপনার এই কথা বলবার জন্য 
( ওহ হো হো হো ! আমার ইঞ্জিনিয়ার এসেছে একবারে! তুমি কোথা থেকে পাস করেছো ?  ) 
আমার বাড়ির পাশের  অন্য প্রতিবেশী কাকুরাও আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠলেন | 
আর এইসব নিয়ে আজ আমাদের ৫ বছর কেটে গেলো | 
এই ঘটনা ঘটেছিলো পাঁচ বছর আগে ; 
আমি এখনো এইসব নিয়ে সারাদিন ভাবি যে 
কিভাবে আমাদের প্রতিবেশী কাকুড়াও আমাকে এত বাজে কথা বলতে পারলো
 বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে | 
আপনি কি জানেন ? 
জেনে নিন যে 
কারো সামনে দাঁড়িয়ে তার ক্ষমতা নিয়ে তাকে চিৎকার করে ছোট করে দিয়ে  , 
তার পাড়ার কাকুদের মধ্যে তাকে ছোট করে দেওয়ার চেষ্টা যদি 
শুধু গাড়ি সরাবার জন্য হয়ে থাকে তাহলে
সে পাগল হয়ে যেতে পারে 
আজ পাঁচ বছর হলো আমি মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত 
এই ঘটনা ঘটবার পরে  || 
যে কেন এতো চিৎকার হলো ?
০৬ টা বেজে ৫৭ মিনিটে প্রথম বার কলিং বেল টিপেই তো শ্যামল কাকু জানালেন যে 
সাড়ে ৭ টায় বেরুবে তার গাড়ি , 
তারপরেই একেবারে ১০ মিনিটের মধ্যে আমি এসে গেলেও 
তাদের বাড়ির সবাই মিলে কিভাবে আমার মান সম্মান শেষ করলো দেখুন আগের  ভিডিওদুটিতে





অতসী ঘটক ম্যাডাম  বলছেন যে কৌশিক পাল ছেলেটা সবাইকে নাচাচ্ছে , 

আমি নাকি ওনাদের সারাদিন ধরে ডিসটার্ব করছি চিৎকার করে এইসব লেখা দেওয়ালে লেখবার সময় | 

একটা কথা জানবেন , আমি কিন্তু এইসব কথা দেওয়ালে লেখবার সময় চিৎকার করি না , লেখবার সময় ভীষণ ভীষণ ভয়ে থাকি | 

এইসব উনি বলছেন আরো বেশি করে যবে থেকে  উনি জেনেছেন যে আমি দেওয়ালে লিখি 

উনি এইসব কথা বাইরে বলে আমার বাড়ির চারপাশে লোকজনদের তৈরী রেখেছেন যাতে সঠিক সময় উনি সুযোগের সদব্যবহার করতে পারেন | 

আমি কিন্তু ঘরের দেওয়ালে এইসব লেখা প্রতিদিন লিখছি না , যখন আমার খুব ভয় করে তখনি আমি এইসব লেখা লেখি শুরু করি 

আমার মাঝে মধ্যেই অনেক ভয় হয় যে অতসী ঘটক ম্যাডাম আমাকে পাড়ার লোকজনদের দিয়ে কোনোদিন পিটিয়ে না মেরে দেয়

আমি অনেক দিন ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছি , আমি ডাক্তার উদয় চৌধুরীর পেশেন্ট ( বাগবাজার বাটার উল্টোদিকে ) | আমি অতসী ঘটকের হাত থেকে বাঁচবার ভয়ে মাঝে মধ্যে দেওয়ালে লিখে ফেলি | 

কারণ উনি পাড়ার সকল মেয়েদের ম্যাডাম এবং পাড়ার সকল মেয়েদের থেকে শুরু করে মেয়েদের বাবা মায়েদের উনি নানান ভাবে বশে রাখতে পারদর্শী | 
উনার দুই মেয়ে Anisha Ghatak এবং Adrija  Ghatak   আমাকে নানান ভাবে তুই তোকারি করে অপমান করে বেশিরভাগ সময় | 
সেইদিন এক কাজের মাসিকে দিয়ে Eve teasing কেসও করতে চেয়েছিলো ওনারা |  

আরো পড়ুন 

Click on >>>>>>>  অতসী দিদিমনির গাড়ি সরাবার কৌশল  <<<<<<< Click on

Post a Comment

0 Comments